Home ভারত বিশালগড়ে ১৬৫৭ জন বিদ্যার্থীকে সংবর্ধনা জ্ঞাপন

বিশালগড়ে ১৬৫৭ জন বিদ্যার্থীকে সংবর্ধনা জ্ঞাপন

by admin
0 comment 68 views

প্রতিনিধি, বিশালগড় , ৩০ মে।। আজকের ছাত্র সমাজ ভবিষ্যতের উত্তরসূরী। তারাই একদিন সমাজের সকল দায়িত্ব কাঁধে তুলে নেবে। তাই মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিক উত্তীর্ণ সকল বিদ্যার্থীদের উত্তরসূরী সম্মাননা প্রদান করেন বিশালগড়ের বিধায়ক সুশান্ত দেব। গত বছরেও অনুরূপ কার্যক্রম হয়েছিল। এবারে হলো দ্বিতীয় পর্ব। বিশালগড় বিধানসভার ২২ টি বিদ্যালয়ের সিবিএসই এবং টিবিএসই পরিচালিত মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিক উত্তীর্ণ ১৬৫৭ জন বিদ্যার্থীদের এদিন শুভেচ্ছা সম্মান জানানো হয় । বৃহস্পতিবার বিশালগড় নতুন টাউন হলে আয়োজিত অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন বিজেপির প্রদেশ সভাপতি রাজীব ভট্টাচার্য। উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক সুশান্ত দেব, বিশালগড় পুর পরিষদের চেয়ারম্যান অঞ্জন পুরকায়স্থ, বিশালগড় ব্লকের শিক্ষা বিষয়ক স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান সুব্রত চৌধুরী, সমাজসেবক গৌরাঙ্গ ভৌমিক, তপন দাস, জিতেন্দ্র চন্দ্র সাহা প্রমুখ। শুরুতে রামায়ণের অংশ নিয়ে অনন্য নৃত্যনাট্য সকলের মন কাড়ে। ১৬৫৭ জন ছাত্র ছাত্রীকে শুভেচ্ছা স্মারক এবং গাছের চারা প্রদান করেন অতিথিরা। বিধায়ক সুশান্ত দেব বলেন লক্ষ্য স্থির রেখে সেই লক্ষ্যে পৌঁছানো পর্যন্ত পরিশ্রম করতে হবে। আজকের এ ছাত্ররা আগামী দিনে বৈভবশালী ভারত এবং শ্রেষ্ঠ বিশালগড় গড়ার কান্ডারী হবে। সমাজের সকল অন্ধকার দূর করতে সকলকে দায়িত্ব নিতে হবে। সর্বদা গুরুজন, শিক্ষক শিক্ষিকাদের শ্রদ্ধা জানাতে হবে। বৃদ্ধাশ্রম মুক্ত সমাজ গঠনে আজকের ছাত্র যুবরা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হতে হবে। চারাগুলো রোপণ করে পরিচর্যা করতে হবে। রাজ্যের সামাজিক ব্যাক্তিত্ব রাজীব ভট্টাচার্য বলেন আজকের উপস্থিতি জানান দিচ্ছে মেয়েরা পড়াশোনায় ভালো ফলাফল করছে। সমাজের সর্বক্ষেত্রে সুনামের সঙ্গে কাজ করছে নারী শক্তি। কে কতো নম্বর পেলে তা নিয়ে চর্চা না করে নতুন চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করে এগিয়ে যেতে হবে। নেগেটিভ বিষয় ছাত্র যুবদের বেশি আকর্ষণ করে। কিন্তু ছাত্র যুবদের ধাবিত হতে হবে পজেটিভ ভাবনা নিয়ে। পুঁথিগত শিক্ষার পাশাপাশি সামাজিক সাংস্কৃতিক কাজে যুক্ত থাকতে হবে। সমাজসেবক গৌরাঙ্গ ভৌমিক ছাত্রদের সময়ের কাজ সময়ে শেষ করার পরামর্শ দেন। শিক্ষা বিষয়ক স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান সুব্রত চৌধুরী এই অভিনব উদ্যোগের জন্য বিধায়ক সুশান্ত দেবকে ধন্যবাদ জানান। ছাত্র ছাত্রীদের ভবিষ্যৎ শিক্ষা জীবন উজ্জ্বল করতে এই শুভেচ্ছা সম্মান এবং পরামর্শ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেবে বলে মনে করেন উপস্থিত শিক্ষক শিক্ষিকারা। বিধায়কের এই অভিনব ভাবনার ভূয়সী প্রশংসা করেন উপস্থিত সবাই।

Related Post

Leave a Comment