Home ত্রিপুরা দূরপাল্লার বাসে বিশালগড়ের যাত্রীদের হয়রানি লাঘবের উদ্যোগ বিধায়কের

দূরপাল্লার বাসে বিশালগড়ের যাত্রীদের হয়রানি লাঘবের উদ্যোগ বিধায়কের

by admin
0 comment 59 views

প্রতিনিধি, বিশালগড়,।। আগরতলা থেকে দক্ষিণ ত্রিপুরা এবং গোমতী জেলার বাস গাড়ি গুলি বিশালগড়ের বুক চিরে বয়ে চলা জাতীয় সড়কের ওপর দিয়েই যাতায়াত করে। আগরতলাগামী বাসে বিশালগড় থেকে যাত্রী তোলা হলেও আগরতলা থেকে দক্ষিণ মুখী দূরপাল্লার বাসে বিশালগড়ের যাত্রীদের হয়রানির শিকার হতে হয়। অনেক সময় যাত্রী তুললেও বসার সিট দেওয়া হয় না। অনেক সময় বসতে দিলেও পরবর্তী সময়ে গোমতী কিংবা দক্ষিণ জেলার যাত্রী উঠলে বিশালগড়ের যাত্রীদের সিট ছেড়ে দিতে বলা হয়। এমনকি গাড়ি থেকে নেমে যাওয়ার কথা বলা হয়। এর ফলে অসৌজন্যমূলক আচরণের পাশাপাশি চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয় বিশালগড়ের যাত্রীদের। বিশেষ করে সন্ধ্যার পর হয়রানির মাত্রা বৃদ্ধি পায়। বিশালগড়ের অনেক ছাত্র-ছাত্রী আগরতলায় প্রাইভেট টিউটর এর কাছে পড়তে যায়। তাদের বাড়িতে ফিরতে হয় রাতে। অনেক ছাত্র-ছাত্রী কলেজ শেষে প্রাইভেট টিউটরের কাছে পড়াশোনা করে ফিরে। এছাড়া অনেক অফিস যাত্রী তাদের সারাদিনের কাজ সেরে রাতে বাড়িতে ফিরতে হয়। কিন্তু দক্ষিণ এবং গোমতী জেলার দূরপাল্লার গাড়িতে তাদের হয়রানির শিকার হতে হয়। এমনকি দুর্ব্যবহারের শিকার হতে হয়। এই সমস্যা দীর্ঘদিনের। এবার কয়েক দশক ধরে চলা এই সমস্যা সমাধানে উদ্যোগ নিলেন বিশালগড়ের তরুণ বিধায়ক সুশান্ত দেব। সোমবার বিকালে বাস মালিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দদের নিয়ে বৈঠক করেন বিধায়ক সুশান্ত দেব। বিশালগড় উদয়পুর সোনামুড়া প্রভৃতি সিন্ডিকেটের বাস মালিক প্রতিনিধিরা বৈঠকে অংশ নেন। বিজেপির বিশালগড় মন্ডল কার্যালয়ে আয়োজিত বৈঠকে বিধায়ক সুশান্ত দেব ছাড়াও বাস মালিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিতিতে সৌহার্দপূর্ণ আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা হয়। বিধায়ক সুশান্ত দেব বাস মালিকদের বলেন ছাত্র-ছাত্রী থেকে শুরু করে অনেকেই রাতের বেলা বাড়িতে ফিরেন। আপনাদের মানবিক দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে একজন যাত্রীকে স্বাচ্ছন্দে গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্ব নিতে হবে। দীর্ঘদিন ধরে যাত্রীদের কাছ থেকে অভিযোগ আসছিল। এ সমস্যা নতুন নয়। আমরা প্রতিটি মানুষের সমস্যার সমাধানে অঙ্গীকারবদ্ধ। তিনি বাস মালিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দদের বলেন আপনাদের সহযোগিতা পেলে এই সমস্যা সমাধান সম্ভব। দীর্ঘ আলোচনা শেষে বাস মালিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ প্রতিশ্রুতি দেন বিশালগড়ের যাত্রীদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করা হবে না। গাড়িতে বসার আসন না থাকলে বিনয়ের সঙ্গে বলা হবে। অনেক সময় দূরপাল্লার যাত্রী হয়ে গেলে সমস্যা তৈরি হয়। সবকিছুই সৌজন্যতা বজায় রেখে সমাধানের আশ্বাস দেন বাস মালিক প্রতিনিধিরা।

Related Post

Leave a Comment