Home ত্রিপুরা গোলাঘাটি চড়িলামে বিস্তারক যোজনার প্রস্তুতি বৈঠক

গোলাঘাটি চড়িলামে বিস্তারক যোজনার প্রস্তুতি বৈঠক

by admin
0 comment 93 views

প্রতিনিধি, বিশালগড় , ১২ ডিসেম্বর।। লোকসভা নির্বাচনে দু’টি আসনে বিজেপির জয় সুনিশ্চিত করতে ময়দান নেমে পড়েছে বিজেপি। প্রাথমিক ধাপে ষাটটি মন্ডলে বিস্তারক যোজনা শুরু হতে যাচ্ছে। ৫ দিবসীয় বিস্তারক যোজনা বাস্তবায়নে গোলাঘাটি এবং চড়িলাম মন্ডলে বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। মঙ্গলবার গোলাঘাটি মন্ডলের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় দয়ারামপাড়ার খুমুচাক কলা কেন্দ্রে। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন বিধায়ক বীরেন্দ্র কিশোর দেববর্মা, বিজেপির জেলা সভাপতি গৌরাঙ্গ ভৌমিক, মন্ডল সভাপতি রামকৃষ্ণ সাহা, সিপাহীজলা সাউথ জোনের সাধারণ সম্পাদক অনিল দেববর্মা । আগামী ২২শে ডিসেম্বর থেকে ৫ দিন ব্যাপী ৬০ টি মন্ডলে প্রবাস কর্মসূচি হাতে নিয়েছে প্রদেশ বিজেপি। এই পাঁচ দিনব্যাপী প্রবাস কর্মসূচিতে প্রত্যেক মন্ডলের প্রত্যেক বুথের সমস্ত একনিষ্ঠ কার্যকর্তা যারা ২০১৮ বিধানসভা নির্বাচনের পূর্বে থেকে রাজ্যে বিজেপি সরকার প্রতিষ্ঠা করার জন্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে গেছেন তাদের সাথে জনসংযোগ করা হবে। কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারের বিভিন্ন প্রকল্প গুলি প্রত্যেক জনগণের সামনে তুলে ধরবেন।পাশাপাশি যারা বিকশিত ভারত সংকল্প যাত্রায় অংশগ্রহণ করেননি বা সরকারের সমস্ত সুযোগ-সুবিধা পূর্বে গ্রহণ করেননি সে সমস্ত পরিবারদের গুলি বাছাই করে তাদেরকে সরকারি প্রকল্পগুলির আওতায় আনার বিষয়ে গুরুত্ব দেয়া হবে। অন্যদিকে চড়িলাম মন্ডলের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় হেড়মা কমিউনিটে হলে। উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের উপমুখ্যমন্ত্রী জিষ্ণু দেববর্মা। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন মন্ডল সভাপতি রাজকুমার দেবনাথ, সিপাহীজলা জেলা উত্তরের সাধারণ সম্পাদক রাজেশ দেববর্মা, সিপাহীজলা জেলা এগ্রিকালচার স্ট্যান্ডিং কমিটির সভাপতি বিশ্বজিৎ সাহা, জনজাতি মোর্চার মন্ডল সভাপতি শিশু দেববর্মা। এদিনের এই ৫ দিবসীয় বিস্তারক কর্মসূচি নিয়ে প্রাক্তন উপ মুখ্যমন্ত্রী জানান কার্যকর্তাদের অক্লান্ত পরিশ্রমে বিজেপির সরকার প্রতিষ্ঠা হয়েছে। ভয়ভীতি উপেক্ষা করে আঠারো সালে জীবনপন লড়াই করেছে কার্যকর্তারা। তাদেরকে কাজের সুযোগ দিতে হবে। কার্যকর্তারা হলেন দলের সম্পদ।
নতুন পুরনো সকল কার্যকর্তা মিলে দলকে আরও শক্তিশালী করে লোকসভা নির্বাচনে দু’টি আসন মোদিজীর হাতে তুলে দেয়া হবে। বুথে বুথে বৈঠক, জনসংযোগ সরকারি প্রকল্পের সুবিধাভোগীদের নিয়ে মতবিনিময় ইত্যাদি কার্যক্রমের মাধ্যমে দলকে শক্তিশালী করার কাজ করতে হবে।

Related Post

Leave a Comment