Home ত্রিপুরা ইয়ামা শোরুমের প্রতারণার শিকার এক নিরীহ যুবক।বাইক সহ নগদ অর্থ রেখে তাড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ! থানায় মামলা।

ইয়ামা শোরুমের প্রতারণার শিকার এক নিরীহ যুবক।বাইক সহ নগদ অর্থ রেখে তাড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ! থানায় মামলা।

by admin
0 comment 40 views

ধর্মনগর প্রতিনিধি, :—- ইনস্টলমেন্টে বাইক ক্রয় করে এক সপ্তাহের মধ্যে নিজের বাইক সহ নগদ অর্থ খোয়ালো এক নিরীহ যুবক। ইয়ামা শোরুমের প্রতারণার শিকার হয়ে এবং কর্তৃপক্ষের দুর্ব্যবহার ও অশালীন আচরণের জন্য অবশেষে ধর্মনগর থানায় এজাহার দায়ের করলো সর্বহারা ওই যুবক। ঘটনা গত শুক্রবার দুপুরের। জানা যায় চুরাইবাড়ি থানাধীন পূর্ব-চুরাইবাড়ি পঞ্চায়েতের মনোহর আলীর ছেলে হুসেন আলী চলতি মাসের গত ২১ ইং তারিখে ধর্মনগর ইয়ামা শোরুম থেকে বাইক ক্রয় করতে যায়। তখন ওই যুবক জানায় স্বল্প ডাউন পেমেন্টের মাধ্যমে সে ফাইন্যান্স করে ইনস্টলমেন্টের মাধ্যমে বাইক ক্রয় করতে চায়। কিন্তু তখন তার আধার কার্ড ও ব্যাংক একাউন্টে ভূল থাকায় শোরুম কর্তৃপক্ষ তাকে দশ দিনের সময় দিয়ে বলে এর মধ্যে সবকিছু ঠিক করে দিলে হবে,অন্যথায় ওই দিনই তারা পঁয়ত্রিশ হাজার চারশো টাকা জমা রেখে বিনা ফাইন্যান্স এর মাধ্যমে তাকে ইয়ামা কোম্পানির এফ,জেড,এস বাইকটি তুলে দেয়। যথারীতি হুসেন আলী এই টাকার বিনিময়ে বাইক নিয়ে আসে এবং দশ দিনের মাথায় তার প্রয়োজনীয় নথি সংশোধন করে শোরুমে জমা দেওয়ার কথা ছিলো। ইতিমধ্যে মাত্র পাঁচ দিনের মাথায় গতকাল অর্থাৎ শুক্রবার শোরুম কর্তৃপক্ষ তাকে ডেকে নিয়ে আচমকা বাইক সমেত নগদ অর্থ রেখে গালিগালাজ করে তাড়িয়ে দেয় বলে অভিযোগ। কিন্তু কি কারনে এই আচরণ করলো শোরুম কর্তৃপক্ষ তা বুঝে উঠতে পারেনি দিনমজুর ওই যুবক। তখন নিরুপায় হয়ে সে সুষ্ঠু সমাধানের আশায় ধর্মনগর থানায় লিখিত একটি এজাহার দায়ের করে শোরুম কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। এখন দেখার প্রতারণার শিকার হওয়া এই নিরীহ যুবকটি কি ন্যায় বিচার পাবে ? নাকি প্রভাবশালী শোরুম কর্তৃপক্ষ এভাবে প্রতারণার ফাঁদ পেতে বাইক বিক্রির নামে হাজার হাজার টাকা হাতিয়ে নেবে। তাই এভাবে ইয়ামা শোরুমের প্রতারণার ফলে আরও শত শত ক্রেতারা আতঙ্কিত হয়ে পড়বে।

Related Post

Leave a Comment