Home ত্রিপুরা ধর্মনগরের রামেশ্বর গ্রাম পঞ্চায়েতে রাধারমন আশ্রম সংলগ্ন এলাকায় দুঃসাহসিক ডাকাতি।

ধর্মনগরের রামেশ্বর গ্রাম পঞ্চায়েতে রাধারমন আশ্রম সংলগ্ন এলাকায় দুঃসাহসিক ডাকাতি।

by admin
0 comment 69 views

ধর্মনগর প্রতিনিধি।
বুধবার ভোররাতে ধর্মনগর শহর সংলগ্ন কামেশ্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের রাধারমন আশ্রম সংলগ্ন এলাকায় জয়ন্ত দাস গুপ্তের বাড়িতে দুঃসাহসিক ডাকাতিতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে ধর্মনগর শহর জুড়ে। ঘটনার বিবরণে জানা যায় জয়ন্ত দাশগুপ্তের মা সবিতা দাশগুপ্ত (৬৩ বছর)একটা ঘরে একা থাকেন এবং ছেলে জয়ন্ত আলাদা করে থাকে। আনুমানিক দুইটা নাগাদ সবিটা দেবী হঠাৎ করে কে কানে হাত দিয়েছে বুঝতে পারায় হাত দিতে তাকে মুখে কালো কাপড় বাধা একজন আওয়াজ না করতে বলে। সবিতা দেবীর ডান দিকের গালে দা দিয়ে আঘাত করে কেটে যায় এবং যদি আওয়াজ করে তাহলে ছেলেকে মেরে ফেলবে বলে হুমকি দেয়। এই বলে তার কানের সোনার দুল গলার চেইন এবং হাতের আংটি নিয়ে নেয়। পাশাপাশি দা দিয়ে বাঁ হাতে ক্রমাগত মারতে থাকে। ছেলে জয়ন্ত জানায় ডাকাত চলে যাওয়ার পর তার মা তাকে ফোন করে কিন্তু দরজা বাইরে থেকে বন্ধ থাকায় সে বের হতে পারেনি। তখন সে তার মাকে দরজা বাড়ির থেকে খোলার জন্য বলে এবং দরজা খুলে দিলে সে তার মাকে বিভিন্ন জায়গায় রক্তাক্ত অবস্থায় দেখতে পেয়ে অগ্নি নির্বাপক বাহিনীর লোকেদের সাহায্যার্থে ধর্মনগরের উত্তর জেলা হাসপাতালে নিয়ে আসে। ঘটনা সম্পর্কে জেলা পুলিশ সুপার ভানুপদ চক্রবর্তী জানান যে দাটি দিয়ে সবিতা দেবীকে আঘাত করা হয়েছে সেই দাটি তাদের ঘরেই ছিল। পুলিশ সম্পূর্ণ ঘটনা তদন্ত করছে এবং অতিসত্বর যে ডাকাত শহরের বুকে আতঙ্ক ছড়িয়েছে তাকে অতিসত্বর গ্রেফতার করে উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে

Related Post

Leave a Comment