Home ত্রিপুরা রাজ্য উপজাতি কল্যাণ দপ্তরের মন্ত্রী বিকাশ দেববর্মা সপার্ষদ বিদ্যালয়ে যান।

রাজ্য উপজাতি কল্যাণ দপ্তরের মন্ত্রী বিকাশ দেববর্মা সপার্ষদ বিদ্যালয়ে যান।

by admin
0 comment 47 views
  1. ছাত্র-ছাত্রীদের অসুস্থতার খবর নিতে উপজাতি কল্যাণ দপ্তরের মন্ত্রী বিদ্যালয়ে গেলেন।সত্য ভাষণ প্রতিনিধি, তেলিয়ামুড়া।২৭ই মে। কৃষ্ণপুর বিধানসভা কেন্দ্রের অধীন মাইগঙ্গা সুকান্ত দ্বাদশ শ্রেণী বিদ্যালয়ে গতকালকে বিদ্যালয় চলাকালীন সময়ে অসুস্থ হয়ে পড়ার বিষয়টি সম্পর্কে অবগত হতেএলাকার বিধায়ক তথা রাজ্য উপজাতি কল্যাণ দপ্তরের মন্ত্রী বিকাশ দেববর্মা সপার্ষদ বিদ্যালয়ে যান। বিদ্যালয়ে যাতে এ ধরনের ঘটনা পুনরাবৃত্তি ভবিষ্যতে না ঘটে সেদিকে লক্ষ্য রাখার জন্য বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষদের নির্দেশ দেন। এখানে উল্লেখ্য , বৃহস্পতিবার প্রচন্ড দাবদাহের মধ্যে বিদ্যালয়ের ইকো ক্লাবের দায়িত্বে থাকা শ্যামলী দাস এবং মানিক চক্রবর্তী নামের দুই শিক্ষক বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষা সর্বাণী ভট্টাচার্যের অনুমতি ক্রমে ছাত্রছাত্রীদের’কে নিয়ে পরিবেশ সচেতনতা মূলক মিছিল সংঘটিত করে। এই মিছিলটি দুপুর সাড়ে বারোটার থেকে শুরু হয়ে বিদ্যালয় চত্বর সহ সন্নিহিত এলাকা প্রদক্ষিণ করার পর যখন বিদ্যালয়ে আসে এর কিছুক্ষণ পর থেকেই ছাত্রছাত্রীরা কাতারে কাতারে অসুস্থ হতে থাকে। যদিও এর আগেও একাধিক ছাত্র-ছাত্রী অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে, তবে এর পেছনে কারণ হিসেবে যা উঠে এসেছে তা অত্যন্ত রোমহর্ষক। , বিদ্যালয়ে নির্ধারিত সময় অর্থাৎ প্রার্থনার পর কিছু ছাত্রছাত্রী বিদ্যালয়ে আসার শাস্তি স্বরূপ অধ্যক্ষা সর্বানি ভট্টাচার্যের নির্দেশ অনুযায়ী দ্বাদশ এবং দশম শ্রেণীর শ্রেণী শিক্ষক বা শিক্ষিকা ছাত্র-ছাত্রীদের প্রখর রৌদ্রের মধ্যে দাঁড় করিয়ে রাখেন এবং ৭০ থেকে ৮০ বার করে কান ধরে উঠবস করান। পুরো ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিদ্যালয় এর ছাত্র-ছাত্রী সহ অভিভাবক মহলে ব্যাপক আতঙ্ক এবং চাঞ্চল্য দেখা দেয়। অভিভাবক এবং এলাকা বাসীদের মধ্যে বিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়। সাংবাদিকরা খবর সংগ্রহ করতে বিদ্যালয়ে গেলে বিদ্যালয়ে শিক্ষক শিক্ষিকারা সাংবাদিকদের সাথে দুর্ব্যবহার করেন বলে অভিযোগ। আজ বিকাল চারটা নাগাদ এলাকার বিধায়ক তথা রাজ্য উপজাতি কল্যাণ দপ্তরের মন্ত্রী বিকাশ দেববর্মা মাই গঙ্গা সুকান্ত দ্বাদশ শ্রেণী বিদ্যালয় এ গিয়ে, প্রধান শিক্ষিকা এবং অন্যান্য শিক্ষক-শিক্ষিকাদের সাথে মত বিনিময় করেন এবং আগামী দিনে যাতে এ ধরনের ঘটনা পুনরাবৃত্তি না ঘটে সেদিকে নজর রাখার নির্দেশ দেন। এখন গত কালকের ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী এবং অভিভাবক মহলে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে, তার জন্য আগামী দিনে বিদ্যালয় পরিচালন কমিটি এবং অভিভাবকদের সঙ্গে নিয়ে সভা করার জন্যও বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষদের নিকট আবেদন রাখেন মন্ত্রী বিকাশ দেববর্মা।
    মন্ত্রীর বিদ্যালয়ে পরিদর্শন এবং আলোচনায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয় পরিচালন কমিটির চেয়ারম্যান তথা তেলিয়ামুড়া মহকুমা শাসক শরদিন্দু দেববর্মা, মাই গঙ্গা ও তার আশপাশ এলাকার অভিভাবক মহল এবং সমাজ সেবক বিজন করসহ অন্যান্য স্থানীয় সমাজ সেবকরা।

Related Post

Leave a Comment